Best Reseller Hosting Service in BD

আপনারা দেখছেন "ডেক্সটপ" এর অন্তর্ভুক্ত পোস্টসমূহ

জেনে নিন কিভাবে কম্পিউটার ক্রাশ হয় ও এর প্রতিকার কি?

কিছুদিন আগেও পিসির আকৃতি ছোট করার আর এটা যাতে সবাই কিনতে পারে সেই দিকেই বেশি গুরুত্ব দেয়া হত। তারা হার্ডওয়্যার তৈরির সময় সবচেয়ে কম দামের পার্টস ব্যবহার করত আর সফটওয়্যার লেখার সময় বিপদজনক শটকাট ব্যবহার করত। তাছাড়া ধীর […]

বেষ্ট LED মনিটর ২০১৪ এর জন্য

LCD মনিটরের পরবর্তী সংস্করন হচ্ছে LED মনিটর। LED মনিটর কেনার সময় সাম্প্রতিক মনিটরটি কিনতে ভুল করবেন না। আগের LED মনিটর গুলোর সাইজ এবং কালারের সমস্যা আছে। কিন্তু নতুন মডেল গুলোতে এই সমস্যা দেখা যায়না বললেই চলে। এখানে আমি […]


বেষ্ট LED মনিটর ২০১৪ এর জন্য

LCD মনিটরের পরবর্তী সংস্করন হচ্ছে LED মনিটর। LED মনিটর কেনার সময় সাম্প্রতিক মনিটরটি কিনতে ভুল করবেন না। আগের LED মনিটর গুলোর সাইজ এবং কালারের সমস্যা আছে। কিন্তু নতুন মডেল গুলোতে এই সমস্যা দেখা যায়না বললেই চলে। এখানে আমি খুব সংক্ষিপ্তভাবে কিছু সেরা মনিটরের রিভিউ শেয়ার করতে যাচ্ছি তাই এই আর্টিকেলটির শিরোনাম বেষ্ট LED মনিটর ২০১৪ এর জন্য দেওয়া হয়েছে।

ViewsonicVX2450WM -LED 24-Inch (23.6-Inch Vis) Widescreen LED Monitor with Full HD 1080p and Speakers”

1

Viewsonic মনিটরের বড় গুন এটি এনার্জি সেভিং মানে অনেক কম বিদ্যুৎ  খরচ হয়। যদি আপনার কোন ছোট ব্যবস্যা প্রতিষ্ঠান থাকে এবং অনেকগুলো মনিটর ব্যবহার করতে হয় তাহলে VX2450WM আপনার জন্য ফিট। তাছাড়া অন্য ব্রান্ডের মটিটর গুলোর দামের সাথে যদি তুলনা কেন তাহলেও VX2450WM খুবই আকর্ষনীয়।

দূর্ভাগ্যজনক হলেও সত্যি Viewsonic VX2450WM এর ইমেজ কোয়ালিটি আমার কাছে ততোটা ভালো লাগেনি যতটা অন্য গ্রেট মনিটরে লেগেছে। অনেক ভালো কোয়ালিটির মুভি দেখা য়ায তবে HD গেম খেলার সময় কালার অনেকটা গাড় লাগে।

ASUS VE278Q 27-Inch LED Monitor

2

The ASUS 27” LED মনিটর সম্পর্কে বলব এর ইমেজ কোয়ালিটি একেবারে মচমচে এবং উজ্জল। কালার নিয়ে কোন অভিযোগ নেই। গেম খেলার জন্য এরচেয়ে ভালো মনিটর পাওয়া খুব কঠিন। এর রেসপন্স রেট 2ms মানে পিসিতে গেম খেলার সময় মনে হবে বাস্তবে খেলছেন। সে জন্যই এটি গেম পাগলদের এক নাম্বার পছন্দর মনিটর।

Apple LED Cinema Display 27-Inch MC007LL/A

3

Apple এর এই মনিটরটি অন্য সব মটিটর কোম্পানির ঘুম কেড়ে নিয়েছে। এই মডেলটির ডিসপ্লে নিয়ে কোন কথা নেই, একেবারে ফাটাফাটি। কালার এবং রেজুলেশন ও একেবারে ডিসপ্লের মত। এই মনিটরটি শুধু কাজেই ভালো না দেখতে ও অনেক ভালো লাগে। মনিটরটি দেখলেই বুঝা যায় Apple অনেক কিছু ভেবে চিন্তেই মটিটরটি তৈরি করেছে। আর সে জন্যই এটি এত বিশি জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

বর্তমানে ২৪” এবং ২৭” মনিটর সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। আপনার জায়গা যদি কম থাকে এবং আপনি মনিটরের খুব কাছে বসে কাজ করতে চান তাহলে কখনোই অনেক বড় মনিটর কিনবেন না। অবশ্য তবে যদি গ্রফিক্স ডিজাইন বা ভিডিও এডিটিং এর কাজ করেন তাহলে অবশ্যই সবচেয়ে বড়টিই কেনা উচিত।

সময় পেলে আমার ব্লগটি একবার দেখতে ভুলেন না: Blogging Tips