Best Reseller Hosting Service in BD

আপনারা দেখছেন "অন্যান্য" এর অন্তর্ভুক্ত পোস্টসমূহ

OOA&D page-575 to page-577

  হেড ফার্ষ্ট – অবজেক্ট অরিয়েন্টেড এনালাইসিস এন্ড ডিজাইন – বইটি আমি অনুবাদের চেষ্টা করছি। নিতান্তই ব্যক্তিগত একটি ধারনাকে উপলব্ধি করার জন্যেই এই অনুবাদের চেষ্টা। কোন টেকনোলজি তৈরীতে আমাদের অবদান নেই। তাই নিজ থেকে বানিয়ে কিছু লেখার সাহস […]

হেডফাস্ট – ও ও এ এন্ড ডি

  হেড ফার্ষ্ট – অবজেক্ট অরিয়েন্টেড এনালাইসিস এন্ড ডিজাইন – বইটি আমি অনুবাদের চেষ্টা করছি। নিতান্তই ব্যক্তিগত একটি ধারনাকে উপলব্ধি করার জন্যেই এই অনুবাদের চেষ্টা। কোন টেকনোলজি তৈরীতে আমাদের অবদান নেই। তাই নিজ থেকে বানিয়ে কিছু লেখার সাহস […]

আপনার YouTube channel ভিজিটর বারিয়ে নিন

how to rank youtube video

আপনি কী নতুন YouTuber আপনার YouTube চ্যানেলে ভিজিটর পাচ্ছেন না, তাহলে এই পোষ্টটি আপনার জন্য। যেভাবে ভিজিটর পাবেন: WDguideline.com নামে একটি ওয়েবসাইট আছে ঐ ওয়েবসাইটে যারা ওয়েব ডেভেলপমেন্ট শিখতে চাই তাদেরকে ভিডিও টিউটরিয়ানের মাধ্যমে দিক নিদের্শনা দেয়। কিন্তু […]

১৩টি সফট স্কিল্লস বিষয়ক সেশন, ২টি প্যানেল ডিসকাশন। পৃথক ক্যারিয়ার কাউন্সেলিং,ক্যারিয়ার বিষয়ক বই, ইভেন্ট পরবর্তী স্কিল্ল ডেভেলপমেন্ট বিষয়ক

common facebook banner

বৃহৎ পরিসরে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে #Soft_Skills_Fest । সফট স্কিল্লস ফেস্ট বিষয়ক কিছু তথঃ স্থানঃ মিলনায়তন ৭১, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি তারিখঃ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সময়ঃ সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা হাইলাইটসঃ ১৩টি সফট স্কিল্লস […]

প্রতিদিন নিয়মিত হাটার উপকারিতা:

হাঁটা সবচেয়ে সহজ ব্যায়াম। ছোট-বড় যে কেউ নিয়মিত হাঁটার অভ্যাস করতে পারেন। প্রশ্ন জাগতে পারে ব্যায়ামের জন্য এত কিছু থাকতে হাঁটা কেন গুরুত্বপূর্ণ? হাঁটলে প্রাকৃতিকভাবে পাবেন সুস্থতা ও প্রাণবন্ত অনুভূতি। আরও রয়েছে শত উপকার। ১. সুস্থ হৃদপিণ্ড, সুন্দর […]

সবার আগে এইস এস সি রেজাল্ট ২০১৮ জানার গোপন ট্রিক্স!

hsc result 2018 resultkit

আসসালামুয়ালাইকুম। কেমন আছো সবাই? এইস এস সি রেজাল্ট নিয়ে নিশ্চয় সবাই অনেক উদ্বিগ্ন। দেখতে দেখতে ১৯শে জুলাই চলে এসেছে। আর ইতিমধ্যে আমরা জেনেছি যে, এই ১৯ তারিখেই এইস এস সি ২০১৮ সালের ফলাফল ঘোষণা হবে। প্রিয় পরীক্ষার্থীরা, তোমরা […]

বিশ্বের প্রথম রঙ্গিন এক্স-রে

মানুষের ওপর পৃথিবীর প্রথম রঙিন ও থ্রিডি এক্স-রে করলেন নিউজিল্যান্ডের গবেষকরা। এ কাজে তারা এমন এক প্রযুক্তি ব্যবহার করেছেন, যা রোগ শনাক্তকরণে উন্নতি আনবে। এ প্রযুক্তি সরবরাহ করে ইউরোপের সার্ন গবেষণা কেন্দ্র।ইউরোপিয়ান অর্গানাইজেশন ফর রিসার্চ বা সংক্ষেপে সার্ন […]

Ajker Deal থেকে এই ঈদে ফ্রিতে Shopping করুন। কোনো টাকা পয়সা ছাড়া (100% Trusted) [একাউন্ট খুললেই ২৫০ টাকা, প্রতি রেফার ৫০ টাকা]]

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা, রমজানুল মুবারক। অনেকদিন পর আজ একটা টিউন করছি, আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে। চলুন তাহলে শুরু করা যাক। প্রথমে গুগল প্লে থেকে এপসটি ডাউনলোড করুন। 😍 প্রথমে এপস টি ডাউনলোড করে ওপেন করুন। ওপেন করলেই […]

ডাউনলোড করে নিন বিখ্যাত সাহিত্যিকদের ৩০০ এর বেশী অডিও গল্প। মিডিয়া ফায়ার লিঙ্ক।

আস সালামু আলাইকুম, আজ আপনাদের কাছে নিয়ে এলাম এমন একটা সাইট যেখানে আপনি পাবেন বিখ্যাত সাহিত্যিকদের লেখা তিনশো (৩০০) এর বেশি রহস্য ও ভয়ের অডিও গল্প। যারা গল্পের বই পড়ার সময় পান না তাদের জন্য খুবই উপযোগী। গল্প […]

Did you know about clickfunnels? see here.

Clickfunnels is like Lead Pages. Lead pages entire program is fundamentally is one single capacity that Clickfunnels can execute. To give you an illustration Clickfunnels resembles having Lead Pages and an exceedingly adaptable pipe developer, have, and in […]

Details of clickfunnels here. see now

Clickfunnels is like Lead Pages. Lead pages entire program is fundamentally is one single capacity that Clickfunnels can execute. To give you an illustration Clickfunnels resembles having Lead Pages and an exceedingly adaptable pipe developer, have, and in […]

ক্রায়োনিক্স বা মৃতদেহকে জীবনে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা।

সায়েন্স ফিকশন বা হরর মুভি, যেখানে আমরা প্রায়ই দেখি কোনো পাগলাটে বিজ্ঞানীর ল্যাবরেটরি থেকে কিংবা কোনো স্পেসশিপের ঢাকনা খুলে বরফাচ্ছাদিত শীতল কক্ষ থেকে এক দল মানুষ বা এ্যলিয়েন বের হয়ে আসছে যারা কিনা মৃতের মত ঘুমিয়ে ছিল শত […]

বর্তমান পৃষ্ঠা ১

ক্রায়োনিক্স বা মৃতদেহকে জীবনে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা।

সায়েন্স ফিকশন বা হরর মুভি, যেখানে আমরা প্রায়ই দেখি কোনো পাগলাটে বিজ্ঞানীর ল্যাবরেটরি থেকে কিংবা কোনো স্পেসশিপের ঢাকনা খুলে বরফাচ্ছাদিত শীতল কক্ষ থেকে এক দল মানুষ বা এ্যলিয়েন বের হয়ে আসছে যারা কিনা মৃতের মত ঘুমিয়ে ছিল শত শত বছর। আট-দশটা সাধারণ মানুষের মত তাদের চলা-ফেরা, বিশেষ কোনো মিশন নিয়ে শত বছর পরের পৃথিবীতে জেগে উঠেছে তারা। আমরা এসব দেখে শিহরিত রোমাঞ্চিত হই। কিন্তু পাঠক কখনো কি ভেবে দেখেছেন বাস্তবে এটি সম্ভব কিনা? সম্ভব হবে আপনার আমার প্রিয়জনকে এভাবে মৃত্যুঘুম থেকে জাগিয়ে তোলা? সবাই একবাক্যে না বললেও বিজ্ঞান আমাদের কথা মানতে নারাজ। আজকের বিজ্ঞানের দ্বারা সম্ভব না হলেও অনেক বিজ্ঞানীই কিন্তু মনে করেন একশো বছর, দুইশ বছর কিংবা তিনশো বছর পরের বিজ্ঞান হয়ত পারবে মৃতদেহকে জীবনে ফিরিয়ে আনতে আর এভাবেই ক্রায়োনিক্স প্রযুক্তির উদ্ভব।

দেখুন আমার ব্লগ প্রযুক্তি কর্নার

ক্রায়োনিক্সকে সরাসরি প্রযুক্তি বললে ভুল হবে এটি হচ্ছে মূলত বিজ্ঞান এবং বিশ্বাসের মিশেল। আমরা যেভাবে খাদ্য ফ্রিজে রেখে সংরক্ষণ করি ঠিক সেভাবেই এক বিশেষ উপায়ে রাসায়নিক প্রয়োগে মৃতদেহকে রাখা হয় অত্যন্ত শীতল অবস্থায় যাতে করে মানুষের দেহের কোষগুলো নষ্ট না হয়। কোনো অঙ্গ-প্রত্যঙ্গর যেন বিন্দু মাত্র ক্ষতি না হয়, ঠিক যেন একজন সাধারণ মানুষ ঘুমিয়ে আছে। তবে এটি সাধারণভাবে বরফ দিয়ে ঠাণ্ডা করার মত নয় কারণ এভাবে দেহের কোষগুলো ঠাণ্ডায় জমে ফেটে যেতে পারে আর তাই ক্রায়োনিক্স বিশারদরা এতে প্রয়োগ করে ক্রায়োপ্রোটেকটেনট নামক এক বিশেষ রাসায়নিক, যা দিয়ে মাইনাস ১৯৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় মৃতদেহের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ থেকে শুরু করে রক্তনালির ভেতরের উপাদানকেও সংরক্ষণ করা সম্ভব। এমনকি বিজ্ঞানীরা এও দাবী করেন এতে নাকি মস্তিষ্কের প্রতিটি স্মৃতি পর্যন্ত অক্ষত থাকে। এভাবেই ভবিষ্যতে জাগিয়ে তোলার আশা নিয়ে সংরক্ষণ করা হয় মৃতদেহ আর এই পুরো প্রক্রিয়াটিকে বলা হয় ক্রায়োনিক্স।

ক্রায়োনিক্সের শুরুটা কারো একার হাত ধরে হয়নি। বিভিন্ন সময়ে মৃত্যু নিয়ে বিজ্ঞানীদের মধ্যে বিতর্কের জের ধরেই এর আবির্ভাব। শুধু মাত্র হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হলেই মানুষ মারা যাবে কেউ কেউ এটা মেনে নিতে চাননি। কেননা ইতিহাসে এমন অনেক ঘটনা আছে, অনেকক্ষেত্রে হৃদযন্ত্র কিছুক্ষণ বন্ধ থাকার পরেও মানুষ বেঁচে ফিরে এসেছে। এই ক্ষেত্রে ২০১৩ সালে যুক্তরাজ্যের সান্ডারল্যান্ডের বাসিন্দা ২৮ বছর বয়সী দুই মেয়ের বাবা ডেভিড বিঙ্কসের কথা উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করা যায়। এপ্রিল মাসের এক সকালে ডেভিডের গোঙানিতে পত্নী লিনেটের ঘুম ভেঙ্গে যায়। পাশেই স্বামীকে দম নেয়ার জন্য হাঁসফাঁস করতে দেখে বুঝতে দেরি হয়নি যে তার স্বামীর হার্ট অ্যাটাক হচ্ছে। তিনি তৎক্ষণাৎ এমবুলেন্স ফোন করেন। সাহায্যের জন্য অপেক্ষা না করে তিনি মুখে মুখ লাগিয়ে এবং বুকে চাপ দিয়ে স্বামীর শ্বাস-প্রশ্বাস চালু রাখার চেষ্টা করেন। মাত্র ৩ মিনিটের মাথায় এমবুলেন্স পৌঁছে যায়। হাসপাতালে ডাক্তারদের অবিরত চেষ্টা এবং ১৬ বার শক দেয়ার পর প্রায় ৭০ মিনিট পরে ডেভিডের হৃদযন্ত্র পুনঃরায় সচল হয়। এই ৭০ মিনিট তিনি কিন্তু অফিসিয়ালি মৃতই ছিলেন, তার কোনো পালস ছিল না। এরপর ডেভিড এক সপ্তাহ হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন এবং কিছুটা সুস্থ হয়ে পরিবারের কাছে ফিরে যান। ডেভিড বলেন, আগেরদিন তিনি আর দশটা সাধারণ মানুষের মতই ঘুমাতে যান কিন্তু পরের দিন যখন জ্ঞান ফিরে আসে নিজেকে আবিষ্কার করেন হাসপাতালের বিছানায়, এর মাঝে কি হয়েছে তার কিছুই মনে নেই। এমন আরও অনেক ঘটনার কথা জানা যায় হৃদযন্ত্র বন্ধ থেকে পুনঃরায় চালু হওয়ার। তাই সত্যিকার অর্থে ঠিক কখন মৃত্যু ঘটে তাই নিয়ে রয়ে গেছে বিতর্ক। আর এই ফাঁকেই উঠে এসেছে ক্রায়োনিক্স। ক্রায়োনিক্স বিজ্ঞানীদের দাবী এর মাধ্যমে নাকি আসল মৃত্যুর কয়েকমিনিট আগেই দেহের সবকিছু আটকে দেয়া সম্ভব এমনকি মৃত্যুকেও (!)

দেখুন আমার ব্লগ প্রযুক্তি কর্নার

পাঠক আপনাদের কাছে যত উদ্ভটই হোক না কেন। এই ধারণা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র সহ ইউরোপের অনেক দেশেই গড়ে উঠেছে ক্রায়োনিক্স ইন্সটিটিউট। আর এদের সদস্যসংখ্যা কিন্তু নেহাত কম নয়। অনেক বিত্তবান, তারকা, বিজ্ঞানীরা হচ্ছে এর সদস্য যারা নিজেদের দেহকে এভাবে ঠাণ্ডা মমি করার জন্য দিয়ে যাচ্ছে ভবিষ্যতে মৃত্যু থেকে জেগে উঠার আশায়। যেভাবে প্রাচীন মিশরে মমি করা হত পুনঃজন্মের আশায়। একুশ শতকে এসে শুধু এর ধরণ বদলেছে। তবে এই ক্রায়োনিক্স সাধারণ মানুষের জন্য নয়, সদস্যকে অত্যন্ত ধনী হতে হবে এর জন্য। সম্পূর্ণ শরীর সংরক্ষণের প্রাথমিক খরচ ৫০ হাজার থেকে দেড় লাখ ডলার পর্যন্ত। প্রতি বছর গুনতে হবে আলাদা করে বার্ষিক সংরক্ষণ ফি। এর জন্য মৃত্যুর পূর্বে ব্যাংকে রেখে যেতে হবে বিশাল অংকের টাকা।

ক্রায়োনিক্স নিয়ে তৈরি হয়েছে বিভিন্ন মুভি, টিভি সিরিয়াল এবং উপন্যাস। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে আর্থার সি ক্লার্কের ‘৩০০১: দা ফাইনাল অডিসি’, জ্যাক লন্ডনের ‘অ্যা থাউজেন্ড ডেথস’, এইচপি লাভারক্রাফটের ‘কুল এয়ার’, এডগার রাইস ব্যরোজের ‘দা রিসারেকসন অব জিম্বার জ’। এছাড়া উল্লেখযোগ্য মুভি হচ্ছে পরিচালক ডব্লিউ ডি রিখটারের ‘লেট ফর ডিনার’, ফরেভার ইয়ং। আরও আছে উল্লেখযোগ্য টিভি সিরিজ ‘কোল্ড ল্যাজারুশ’, ‘ড. হু’, ‘গোথাম’ যেখানে দেখানো হয়েছে ক্রায়োনিক্স।