Best Reseller Hosting Service in BD
আমি আতিকুর রহমান। পেশায় একজন B.Sc Engineer. আমি খুব বেশি কিছু জানি না তবে ব্লগ লেখা আমার শখ। তাই যখন সুযোগ পাই তখন লিখতে বসি। যদি আমার একটি পোস্ট ও আপনাদের একটু হলেও হেল্প করে তাহলে আমার চেষ্টা সার্থক হবে। সবাই ভাল থাকবেন।
মোট পোস্ট সংখ্যা: 371  »  মোট কমেন্টস: 5  
Facebook
Google Plus
Twitter
Linkedin

হজমের সমস্যা দূর করার ঘরোয়া ৫টি উপায়!

ঈদ মানেই খাওয়া দাওয়ার ধুম পড়ে যায়। নিজের ঘরে অনেক রকমের খাবার তো থাকেই। সেই সাথে বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়- স্মজনের বাসায় বেড়াতে গেলে অনিচ্ছা সত্ত্বেও বেশি খাওয়া হয়। ফলে অতিরিক্ত চর্বি, তেল-মশলার প্রভাবে হজমে গন্ডগোল দেখা দেয়। ঈদের দিন আমরা যেসব তেল-মশলা-ঘি যুক্ত খাবার খাই এগুলো হজম হতে কম পক্ষে ১০ থেকে ১২ ঘন্টা সময় লাগে। ফলে খাওয়ার পর থেকে এক ধরণের অস্বস্তি কাজ করতে থাকে। এতো খাবারের চাপে অনেক সময় পাকস্থলির এনজাইম ঠিক মত কাজ করে না। ফলে হজমে গন্ডগোল দেখা দেয়। এসময়ে পেট ব্যথা, ডায়রিয়া, বমি, পেটফাঁপা ইত্যাদি সমস্যা দেখা দেয়।

তাই বলে তো ঈদে শুধু সাদা ভাত আর নিরামিষ খাওয়া যায় না তাই না? ঈদে হজমের গন্ডগোল দেখা দিলে ঘরেই কিছু উপায়ে প্রতিকার পাওয়া সম্ভব। আসুন জেনে নেয়া যাক হজমে গন্ডগোলের ঘরোয়া প্রতিকারগুলো।
ঘৃতকুমারীর রস (অ্যালোভেরা)

যাদের হজমে প্রায়ই গন্ডগোল হয় তাঁরা ঘৃতকুমারীর রস খেলে উপকার পাবেন। ঘৃতকুমারীর রসে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও মিনারেল থাকে যা হজম সমস্যা দূর করতে সহায়তা করে। ঘৃতকুমারীর রস কোষ্ঠকাঠিন্য ও গ্যাসের সমস্যা দূর করতেও সাহায্য করে। ঘৃতকুমারী পাতা থেকে চামচ দিয়ে রস বের করে নিন। এরপর এই রসে কিছুটা পানি মিশিয়ে প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে ও রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে খান। তাহলে হজমের সমস্যা দূর হয়ে যাবে কিছুদিনের মধ্যেই।

e-HostBD Hosting Service

যে কোনো মশলার দোকানেই মৌরি কিনতে পাওয়া যায়। খেতে কিছুটা মিষ্টি স্বাদের এই মশলাটি। প্রতিবার খাওয়ার পরে অল্প কিছু শুকনো মৌরি চিবিয়ে খেয়ে নিন। সকালের নাস্তায়, দুপুরের খাবারে কিংবা রাতের খাবার খাওয়ার পড়ে আধা চামচ বা তার চেয়ে একটু কম শুকনো মৌরি ভালো করে চিবিয়ে গিলে ফেলুন। শুকনা গিলতে সমস্যা হলে একটু পানি দিয়ে গিলুন। নিয়মিত খেলে হজমের সমস্যা দূরে থাকবে চিরকাল এবং স্বাস্থ্য ভালো থাকবে।
আদা ও লেবু

হজমের গন্ডগল ঠিক করতে আদাও লেবুর রস মিশিয়ে খেলে বেশ উপকার পাওয়া যায়। জেনে নিন এটা প্রস্তুত করার নিয়ম।

১ চা চামচ আদা বাটা
অর্ধেকটা লেবুর রস

এভাবে সব উপকরন হাল্কা গরম পানির সাথে এক সাথে মিশিয়ে পান করুন। হজমের গন্ডগোল থেকে নিস্তার মিলবে।
ইসবগুল

দীর্ঘমেয়াদি হজমের সমস্যা সমাধানের জন্য অত্যন্ত প্রচলিত একটি পদ্ধতি হলো ইসবগুলের সরবত খাওয়া। ইসবগুলের সরবত খেলে পেট ঠান্ডা থাকে এবং হজম প্রক্রিয়া স্বাভাবিক হয়। যেনে নিন ইসবগুলের সরবত তৈরি ও খাওয়ার নিয়ম।

১ টেবিল চামচ ইসবগুল
এক গ্লাস হালকা গরম পানি

পানিতে ইসবগুল ভালো করে মিশিয়ে নিন। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে প্রতিদিন এভাবে সরবত বানিয়ে খেয়ে নিন। কয়েকদিনের মধ্যেই হজমের সমস্যা দূর হয়ে যাবে।
পেঁপে বা আনারস খান

পেঁপে হজম সমস্যা সমাধানের জন্য একটি উপকারী ফল। এতে আছে পাপেইন ও কাইমোনপ্যাপাইন নামক এনজাইম। এই দুটি এনজাইমই হজমে সহায়ক। এই এনজাইম দুটি পেট পরিষ্কার করে এবং হজম সমস্যার সমাধান করে।

আনারসে ব্রোমেলাইন এনজাইম আছে। ব্রোমেলাইন বদহজমের জন্য দ্বায়ী প্রোটিনগুলোকে ধ্বংস করে। ফলে আনারস খেলে পেট ফাঁপা, ডায়রিয়া ও বদহজম সমস্যার সমাধান হয়।

এই দুটি ফল জুস করে কিংবা টুকরো করে চিবিয়ে খেলে পেটের সব ধরণের হজমের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এসিডিটি হলে পেঁপে বা আনারস খেলে তা অ্যান্টাসিডের কাজ করে।






eHostBD Hosting

মন্তব্য করুন