Best Reseller Hosting Service in BD
আমি আতিকুর রহমান। পেশায় একজন B.Sc Engineer. আমি খুব বেশি কিছু জানি না তবে ব্লগ লেখা আমার শখ। তাই যখন সুযোগ পাই তখন লিখতে বসি। যদি আমার একটি পোস্ট ও আপনাদের একটু হলেও হেল্প করে তাহলে আমার চেষ্টা সার্থক হবে। সবাই ভাল থাকবেন।
মোট পোস্ট সংখ্যা: 371  »  মোট কমেন্টস: 5  
Facebook
Google Plus
Twitter
Linkedin

লেটুস পাতার ৬টি স্বাস্থ্য উপকারিতা

বার্গার কিংবা সালাদের সাথে লেটুস পাতা না হলে কি চলে? তরতাজা সবুজ রঙের একটি লেটুস পাতা খাবারের স্বাদ ও আকর্ষন বাড়িয়ে দেয় অনেক খানি। লেটুস পাতা কেবল দেখতেই সুন্দর নয়, এর আছে অসংখ্য উপকারিতা। পুষ্টি গুণে ভরা এই পাতা নিয়মিত খেলে শরীরের নানান সমস্যা দূর হওয়ার পাশাপাশি বেশ তরতাজাও থাকা যায়।

প্রতি ১০০ গ্রাম লেটুসে আছে ১৫ ক্যালোরি, ২৮ মিলিগ্রাম সোডিয়াম, ১৯৪ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম, ২.৯ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট, ১.৪ গ্রাম প্রোটিন, ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, ভিটামিন বি-৬, ক্যালসিয়াম, আয়রন ও ম্যাগনেসিয়াম।

আসুন জেনে নেয়া যাক লেটুস পাতার ৫টি স্বাস্থ্য উপকারীতা।
ওজন কমাতে সহায়ক

e-HostBD Hosting Service

লেটুস পাতায় আছে ফাইবার ও সেলুলোজ। এছাড়াও এতে ক্যালোরীর পরিমাণ খুবই কম। ফলে যারা ওজন সমস্যায় ভুগছেন তারা খাবার তালিকায় প্রচুর পরিমাণে লেটুস পাতা রাখতে পারেন। প্রতিদিন সালাদের সাথে প্রচুর লেটুস পাতা রাখুন। তাহলে কম ক্যালোরিতে পেটও ভরবে আর খাবারের স্বাদও অক্ষুণ্ণ থাকবে।
হৃদপিন্ডের জন্য ভালো

লেটুস পাতায় উপস্থির ফাইবার রক্তের কোলেস্টেরল কমাতে সহায়তা করে। এছাড়াও লেটুসে আছে ভিটামিন সি ও বিটা-ক্যারোটিন। এই দুটি উপাদান কোলেস্টেরলের অক্সিডেসন কে বাধা দেয় এবং কোলেস্টেরল কমাতে সহায়তা করে। ফলে রক্তের খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রনে থাকে এবং হৃদপিন্ড ভালো থাকে।
হাড় ভালো রাখে

লেটুস পাতা ভিটামিন কে এর একটি ভালো উৎস। ভিটামিন কে হাড়ের মেটাবলিজম বাড়ায়। এছাড়াও ভিটামিন কে হাড়ের কোষ গুলোকে সচল রাখে এবং দ্রুত হাড় ক্ষয় হওয়ার থেকে শরীর কে রক্ষা করে।
ভেষজ প্রোটিনের উৎস

লেটুসের ক্যালরীর মোট ২০ শতাংশ হলো ভেষজ প্রোটিন। এই ভেষজ প্রোটিনের সাথে প্রাণীজ প্রোটিন মিশিয়ে সালাদ বানালে শরীরের প্রোটিনের অভাব দূর হবে এবং শরীরের গঠন প্রক্রিয়া সচল থাকবে।
ত্বক ভালো রাখে

লেটুস পাতায় প্রচুর পরিমাণে বিভিন্ন ভিটামিন আছে যা ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। নিয়মিত লেটুস পাতা খেলে ত্বক ভেতর থেকে পরিষ্কার হয় এবং ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো থাকে। তাই যাদের ত্বকে বিভিন্ন রকম সমস্যা আছে তাদের জন্য লেটুস পাতা খুবই উপকারী।
রক্ত শূন্যতা দূর করে

লেটুসে প্রচুর পরিমাণে আয়রন আছে। ফলে হিমোগ্লোবিন বাড়ানোর ক্ষেত্রে লেটুস পাতা একটি উপকারী সবজি। তাই যারা অ্যানিমিয়া বা রক্তশূন্যতায় ভুগছেন তাদের জন্য লেটুস পাতা হতে পারে একটি আদর্শ খাবার।






eHostBD Hosting

মন্তব্য করুন