Best Reseller Hosting Service in BD
আমি একজন অদৃশ্য মানব। কোন কিছু ভালো লাগলে সবার সাথে শেয়ার করি। এটাই আমার শখ। ভালো থাকবেন আর আমার জন্য দোআ করবেন।
মোট পোস্ট সংখ্যা: 105  »  মোট কমেন্টস: 20  
Facebook
Google Plus
Twitter
Linkedin

ইউটিউব ব্যবহারের ৬টি গোপন এবং গুরুত্বপূর্ণ কৌশল জেনে নিন

ইন্টারনেট ব্যবহার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট ইউটিউব দিনদিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। আর এটি ব্যবহারের কিছু কৌশল রয়েছে, যা অনেক পুরনো ব্যবহারকারীও জানেন না। এ লেখায় থাকছে তেমন কিছু কৌশল। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ফক্স নিউজ।

১. টিভিতে ইউটিউব টিভিকে কম্পিউটার মনিটর বানিয়ে তাতে ইউটিউবের ভিডিও দেখা অনেকেরই বেশ পছন্দ। কিন্তু টিভি সাধারণত দূর থেকে দেখা হয় আর এতে টিভি দেখা গেলেও কম্পিউটারের মাউস কার্সর খুঁজে পাওয়া যায় না। এছাড়া আইকনগুলোও দেখতে সমস্যা হয়। এ সমস্যার সমাধানে ইউটিউবের ভালো একটি সমাধান রয়েছে। এজন্য ইউটিউবের এ অংশে ক্লিক করলেই সমাধান পাওয়া যাবে- https://www.youtube.com/tv এখানে টিভি থেকে দেখার জন্য বড় আকারে দেখানো হয় সব প্রিভিউ ও লেখা। এছাড়া কিবোর্ডের ‘এস’ ও ‘জি’ কি-তে ক্লিক করলেই সার্চ ও পরবর্তী কলাম দৃশ্যমান হয়।

২. বিরক্তিকর অ্যানোটেশন অফ করা আপনি কোনো ইউটিউব ভিডিওতে যদি একটু সামনের দিকে ক্লিক করেন তাহলে তা অনেকটা বাফারিং স্টাইলে দেরি করে। এতে মাঝে মাঝে বিরক্ত হয়ে দেখাই বন্ধ করে দেন অনেকে। যদিও বিষয়টি অধিকাংশ ক্ষেত্রে অ্যানোটেশন অফ করেই সমাধান করা যায়। এজন্য ইউটিউব ভিডিওর নিচের ডান পাশে গিয়ার চিহ্নটিতে ক্লিক করুন। এরপর “Annotations” অফ করে দিন। উপরের কাজটি শুধু একটি ভিডিওর ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। যদি একে ডিফল্ট করতে চান তাহলে আপনার প্রোফাইল থেকে উপরের ডান কোনে গিয়ার আইকনে ক্লিক করুন। এরপর ইউটিউব সেটিংস-এ যান। সেখানে বাম কোনে রয়েছে “Annotations and interactivity” ও তার ভেতর “Playback.” এখানেই “Show annotations …” -এ গিয়ে তা আনচেক করে দিতে হবে। সবশেষে সেভ করতে ভুলবেন না।

e-HostBD Hosting Service

৩. ভিডিও স্পিড পরিবর্তন ফাস্ট ফরোয়াড করে যদি ভিডিও দেখতে চান তাহলে তার উপায়ও রয়েছে ইউটিউবে। এজন্য যে কোনো ভিডিও চালু করে তার নিচে ডান পাশের গিয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন। এরপর ড্রপ ডাউন বক্স থেকে স্পিড খুঁজে বের করুন। এখান থেকেই গতি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।

৪. মসৃণ স্ট্রিমিং ইন্টারনেটের কানেকশনের ওপর নির্ভর করে ভিডিও কোয়ালিটি সেটিংস ঠিক করে নেওয়া যায়। এতে ইন্টারনেট বাফারিংয়ের বিষয়টিও অনেকখানি নিয়ন্ত্রণ করা যায়। ফলে মসৃণ স্ট্রিমিংয়ে ভিডিও দেখা সম্ভব। তবে আপনার ইন্টারনেট স্পিড যদি স্থিতিশীল না হয় তাহলে বিষয়টি ঝামেলা করতে পারে। এক্ষেত্রে যে কোনো ভিডিও চালু করে তার নিচে ডান পাশের গিয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন। এরপর কোয়ালিটিতে ক্লিক করুন। এখানে যদি ১০৮০ পি থাকে তাহলে তা কমিয়ে ৭২০ করুন। আপনার ইন্টারনেটের গতি কম হলে এটি কমিয়ে দিন। ফলে কম ব্যান্ডউইথ ব্যবহার করবে এবং মসৃণ ভিডিও পাওয়া যাবে।

৫. রাইট টাইমে ভিডিও শেয়ার ফেসবুকে ভিডিও শেয়ারের পর প্রায় তিন মিনিট সময় লাগে তা চালু হতে। আপনার যদি দ্রুত ভিডিও শেয়ার করা প্রয়োজন হয় তাহলে সেজন্য একটি সমাধান রয়েছে। এজন্য আপনার ভিডিওটি সিলেকশনের শুরুতে রাখুন। এরপর ভিডিওটিতে রাইট ক্লিক করে “Get video URL at current time”-এ ক্লিক করুন। এরপর সেখান থেকে লিংকটি কপি ও পেস্ট করুন।

৬. অটোপ্লে সম্প্রতি ইউটিউবে অটোপ্লে যোগ করা হয়েছে। এতে আপনার একটি ভিডিও চলা শেষ হলে পরবর্তী ভিডিও চলতে শুরু করবে। এজন্য ভিডিওর নিচের গিয়ার আইকনে ক্লিক করুন। এরপর অটোপ্লে বাটনটি খুঁজে বের করুন। এর মাধ্যমেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন বিষয়টি।






eHostBD Hosting

মন্তব্য করুন