Best Reseller Hosting Service in BD
সুপ্রিয় Anytechtune কমিউনিটি, আপনি যে অপারেটর ব্যবহার করছেন তা কি আপনাকে সকল সুবিধা দিচ্ছে বা আপনি সেই সুবিধা সম্পর্কে অবগত আছেন? ভিজিট করুন Teleinfo24.com বাংলাদেশী ফাস্ট আপডেটেড টেলিনিউজ পোর্টাল
মোট পোস্ট সংখ্যা: 2  »  মোট কমেন্টস: 0  
Facebook
Google Plus
Twitter
Linkedin

প্রফেশনাল গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভাল এন্ড ড্যাশবোর্ড পর্ব ১ (নন হোস্টেড)

তারিকুল আইটি (Tariqul IT) কর্তৃক প্রকাশিত প্রথম ধারাবাহিক প্রফেশনাল গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভেশন এন্ড ড্যাশবোর্ড পর্ব (নন হোস্টেড) এ আপনাদের স্বাগতম। আপনারা যারা ব্লগিং করেন বা ইউটিউবে কাজ করেন সকলের কাছেই অ্যাডসেন্স সোনার হরিণ নামেই পরিচিত। বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যাড নেটওয়ার্ক গুগল অ্যাডসেন্স এর পাবলিশার হতে পারাটাও বেশ সম্মানীয় বা আনন্দ দায়ক ব্যপার। ব্লগের মান বৃদ্বির ক্ষেত্রেও এটি বেশ বড় ধরনের ভুমিকা রাখে। স্প্যামিং বাড়ার সাথে সাথে কমে যাচ্ছে অ্যাডসেন্সের অ্যাপ্রভেশনের পরিমান। এ ব্যস্তানুপাতিক প্রক্রিয়া সমাধানে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি আমি তারিকুল ইসলাম। বাংলাদেশে অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভ কমে যাওয়ার জন্য কেবল আমরাই দায়ী। স্প্যামিং কে নিজেদের হাতিয়ার বানিয়ে বাংলাদেশি কিছু নামী দামী ব্লগিং কমিউনিটি হারাচ্ছে তাদের মান। কথা পিঠে কথা বলে সময় নষ্ট করতে ইচ্ছুক নই।

টিউটোরিয়ালের বিষয়ঃ কি ধরনের ব্লগ সাইট খুললে অ্যাপ্রুভ পাওয়ার চান্স বেশি থাকে এবং সাইটে কি  কি জিনিস থাকা বাঞ্চনীয়। (নন হোস্টেড)

কি ধরনের ব্লগ সাইট খুলবেনঃ

আপনি যে ব্যপারে দক্ষ বা তথ্য সংগ্রহে আগ্রহী, সেই গুলিকে বেজ হিসেবে ধরে আপনি অগ্রসর হবেন। কিছু ভালো ভালো নিশ রয়েছে যেগুলিকে টার্গেট করে আপনি ব্লগে কন্টেন্ট লিখলে বেশ ভালো সিপিসির অ্যাড প্রদর্শ্ন করতে পারবেন তেমনি অ্যাপ্রুভ হওয়ার চান্স ও বেশি হবে। নিম্নে কিছু জনপ্রিয় নিশ সম্পর্কে দেয়া হলঃ

e-HostBD Hosting Service
  • টেকনোলজি
  • গুগলের বিভিন্ন প্রোডাক্ট
  • আপডেট মোবাইলীয় বা ল্যাপটপ এর খবরা খবর
  • বিষয় ভিত্তিক যেমন এস ই ও, ওয়েব ডিজাইন, গ্রাফিক্স ডিজাইন ইত্যাদি
  • অথবা গুগল ট্রেন্ডস এ থাকা ক্যাটাগরীসমূহ

প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল এই সাইটে । জয়েন করুন Facebook Group অামার সাথে

অামার Facebook ID

এবার চলুন দেখি কি কি ক্যাটাগরির সাইট নির্বাচন হতে বিরত থাকবেনঃ

কোনো ভাবেই কোনো ইকমার্স সাইট দিয়ে অ্যাপ্রুভের চেষ্টা করবেন না। এছাড়াও ফটোগ্যালারী বা ডাউনলোড সাইট ইত্যাদিও নয়। কোনো অ্যাডাল্ট বা এরূপ কাছাকাছি কোনো কিছু নয়।

সাইট নির্বাচন শেষ এবার আসুন দেখি সাইটের ভেতরে কি কি থাকতে হবেঃ

  • প্রথমেই টেম্পলেটের বিষয়ে বলি। আপনি একটি সাদাসিধে টেম্পলেট নির্বাচন করুন। টেম্পলেটটি অবশ্যই রেস্পন্সিভ হতে হবে। যে টেম্পলেটটি নির্বাচন করবেন সেটি ভালো ভাবে বিভিন্ন ডিভাইসে দেখে নিন অথবা অনলাইনে রেস্পন্সিভ টেম্পলেট চেকারের মাধ্যমে চেক করুন।
  • টেম্পলেটের ব্যকাগ্রাউন্ড সাদা হতে হবে এবং অ্যাড বসানোর জন্য যথেষ্ট জায়গা থাকতে হবে।
  • সাইটে যেসকল মেনু রাখতেই হবে About US, Privacy policy, terms and conditions, contact us ইত্যাদি। আর ক্যাটাগরি গুলি এমনভাবে দিতে হবে যাতে ভিজিটর সহজেই ক্যাটাগরির নাম দেখেই বুঝতে পারে এটা কি বিষয়ক ক্যাটাগরি
  • সাইটে এস ই ও র‌্যাংক ভালো হতে হবে। যদি সাইটের অন পেজ এস ই ও না থাকে বা গুগলের সার্চ ইঞ্জিনে ইন্ডেক্স না হয়ে থাকে তাহলে কোনো ভাবেই অ্যাপ্রুভ আশা করা সম্ভব না।
  • ৫০ থেকে ৬০ টি কন্টেন্ট থাকতে হবে। বেশি থাকলে পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।
  • সাইটের ভাষা হবে ইংরেজী কেননা এখনও গুগল বাংলা ভাষাকে সাপোর্ট করেনা। এর জন্য আপনার ইংরেজীতে লেখার দক্ষতা থাকা অত্যন্ত জরুরী। কমপক্ষে ৩০০ শব্দের কন্টেন্ট লিখতে হবে। তাই এমন কোনো নিশ বাছাই করবেন না। যেটা দিয়ে বড় কন্টেন্ট লেখা সম্ভব নয়।
  • সাইটে যেকোনো একটি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে লিখুন। পাচমেশালী লেখা হতে বিরত থাকুন। আর্নিং এর চিন্তা বাদ দিয়ে ভিজিটর ফ্রেন্ডলী লেখা লিখুন যাতে ভিজিটর আপনার লেখা সাচ্ছন্দে পড়তে পারে পারে।
  • সাইটে লেখার ভেতর ইমেইজগুলি অবশ্যই অল্টার ট্যাগ এবং টাইটেল থাকতে হবে। কোনো প্রকার কপি পেস্ট লেখা বা ইমেইজ দেয়া যাবে না। ইমেজের মধ্যে বাংলা থাকলে কোনো প্রকার সমস্যা হবে না। কারন আমি নিজেও অ্যাপ্রুভ পেয়েছি বাংলা ইমেইজ ব্যবহার করেই।
  • সাইটে স্প্যাম হচ্ছে কিনা বা আপনার কন্টেন্ট কপি পেস্ট হচ্ছে কিনা তা জানতে Copyscape এর সাহায্য নিতে পারেন গুগলে copyscape লিখে সার্চ করলেই আপনি পেয়ে যাবেন
  • আর একটি বিষয় না বললেই নয় যে কোনো প্রকার কপিরাইট ছবি গুগল সাপোর্ট করে না। বিষয়টি অবশ্যই মাথায় রাখবেন
  • এখন কথা হল আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন না পারেন তাহলে কি করবেন?? গুগল থেকেই ইমেইজ নামিয়ে কন্টেন্টে দিন। অবাক হয়ার কিছুই নেই। তবে হে আপনাকে অবশ্যই কিছু হলেও ইডিট করতে হবে। আপনি চাইলে আপনার কম্পিউটার থেকে Paint নামক সফটওয়্যার দিয়েও কাজ করতে পারবেন। চাইলে প্রত্যকটি ইমেইজে আপনার লোগো ব্যবহার করতে পারেন।
  • এবার কিছু যুক্তি দেখাবো। ধরুন আপনি অ্যাডসেন্সের অ্যাডভার্টাইজার বা বিজ্ঞাপনদাতা আপনি কি চান আপনার অ্যাডগুলি এমন কিছু সাইটে প্রদর্শিত হোক যার কন্টেন্ট গুলির মান খুবই খারাপ। নিশ্চই না। কারন আপনি চান না যে আপনার কষ্টের টাকা বিফলে যাক।
  • গুগল অ্যাডসেন্স আপনার সাইটে ভিজিটর দেখবে না বা আপনার সাইটের র‌্যাংক দেখবে না। এছাড়াও আপনার সাইটের আকর্ষনীয় ডিজাইনও দেখবে না। আপনি যে কন্টেন্ট গুলি লিখেছেন গুগল সেটার মান বিবেচনা করবে তারপর অ্যাপ্রুভের জন্য সিদ্দ্বান্ত নেবে।
  • সাইটের সকল ব্যপারগুলি ঠিক থাকলে আপনার ডোমেইনের বয়স ৩ মাস থেকে ৬ মাস হলেই আবেদন করতে পারবেন
  • আপনি চাইলে হোস্টিং নিতে পারবেন। তবে ব্লগস্পটে যারা সাইট করবেন তাদের জন্য বলছি। আপনার ব্লগস্পটের বয়স ৬ মাস হতে হবে।
  • ফ্রি বা সাবডোমেইন দিয়ে অ্যাপ্রুভ পাওয়ার চিন্তা আর ড্রেনের পাশে বসে অ্যামেরিকায় আছেন বিবেচনা করা একই কথা।
  • সাইটে অন্যকোনো অ্যাড নেটওয়ার্কের অ্যাড বসালে সেটা গুগলে আবেদনের পূর্বে তুলে ফেলুন।

আশা করব এই বিষয় গুলি মাথায় থাকলেই আপনি অ্যাপ্রুভ পেয়ে যাবেন। এর পর আমরা দেখব কিভাবে অ্যাডসেন্সের জন্য আবেদন করবেন। পরবর্তি সিরিজের অগ্রিম আমন্ত্রন জানিয়ে এখানেই শেষ করছি।

ধন্যবাদ

প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল এই সাইটে । জয়েন করুন Facebook Group অামার সাথে

অামার Facebook ID






eHostBD Hosting

মন্তব্য করুন