Best Reseller Hosting Service in BD
আমি একজন অদৃশ্য মানব। কোন কিছু ভালো লাগলে সবার সাথে শেয়ার করি। এটাই আমার শখ। ভালো থাকবেন আর আমার জন্য দোআ করবেন।
মোট পোস্ট সংখ্যা: 106  »  মোট কমেন্টস: 20  
Facebook
Google Plus
Twitter
Linkedin

সকালে নাকি সন্ধ্যায় – ব্যায়ামের জন্য উপযুক্ত সময় কখন?

e-HostBD Hosting Service
আপনি কি শরীরচর্চার কথা ভাবছেন? কখন কোন সময়কে বেছে নেবেন তাই নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন? সকালে নাকি সন্ধ্যায় শরীরচর্চা হবে কখন এই নিয়ে রয়েছে নানান গবেষণা। আসুন আপনার এক্সারসাইজ রুটিন করার সুবিধার্থে জেনে নিই সেইসব গবেষণার কথা।
সকালে ব্যায়াম করার সুবিধা
একটি স্টাডিতে দেখা যায়, সকালে ব্যায়াম করা ব্লাড প্রেশার কমানো এবং ঘুম ভাল করার জন্য খুবই কার্যকরি।
এপালাচিয়ান স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষক ডা. স্কট কলিয়ার ব্লাড প্রেশারের উপর শরীরচর্চার প্রভাব নিয়ে গবেষণা করেছেন। রিসার্চ এসিস্ট্যান্ট কিমবার্লি ফেয়ার ব্রাদার এবং বেন কার্টনার কে সাথে নিয়ে কলিয়ার এগিয়ে নিয়ে যান তার গবেষণা। তিনি ৪০ থেকে ৬০ বছর বয়সী একদল মানুষের রক্তচাপ এবং ঘুমের প্যাটার্ন ট্রেস করেন। এই মানুষেরা ৩০ মিনিট করে সপ্তাহে ৩ দিন ব্যায়াম করতেন। তবে তাদের সময়ের কোন ঐক্য ছিল না। কেউ ব্যায়াম করতেন সকালে, কেউ দুপুরে, কেউ বা সন্ধ্যায়।
ফলাফল
যেসব মানুষের উপর গবেষণা চালানো হয় তাদের মধ্যে যারা সকালে ব্যায়াম করতেন তাদের ক্ষেত্রে ফলাফল ছিল লক্ষ্যণীয়। দেখা যায়, তাদের উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা কমে আসে ১০% পর্যন্ত। সারাদিনই এই রক্তচাপের কমে যাওয়ার প্রভাব থাকে। রাতে অনেক ভাল ঘুম হয় তাদের এবং ঘুম চক্র বেশ নির্বিঘ্ন। রাতে তাদের রক্তচাপ আরও নেমে যায়। ২৫% পর্যন্ত!
সকালে নাকি সন্ধ্যায় - ব্যায়ামের জন্য উপযুক্ত সময় কখনকাজ শেষে ব্যায়ামের সুবিধা
শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লিনিকাল রিসার্চ সেন্টারের গবেষণায় দেখা গেছে সন্ধ্যায় বা সারাদিনের কাজ শেষে যারা ব্যায়াম করেন তাদের শারীরিক ফিটনেস অনেক ভাল।
এই গবেষণায় ব্লাড স্যাম্পল নেওয়া হয়েছিল ৪০ জন স্বাস্থ্যবান মানুষের। তাদের বয়স ছিল ২০-৩০ বছরের মধ্যে। তাদেরকে ৫ টি গ্রুপে ভাগ করা হয়। ৪টি গ্রুপকে সকালে, দুপুরে এবং সন্ধ্যায় ব্যায়াম করার নির্দেশনা দেওয়া হয়। আর একটি গ্রুপকে ব্যায়াম করা থেকে বিরত রাখা হয়। এরপর তাদের রক্তের স্যম্পল নিয়ে পরীক্ষা করা হয় এন্ডক্রিন হরমোন কর্টিসল এবং টাইরোট্রপিনের মাত্রা।
ফলাফল
দেখা যায়, যারা রাতে ব্যায়াম করেছেন তাদের ক্ষেত্রে এই দুই হরমোনের মাত্রাই বেড়ে গেছে চমৎকার হারে। আবার তাদের গ্লুকোজ লেবেল নেমে গেছে।
ডা. অর্ফিউ বাক্সটোন (প্রধান গবেষক) বলেন, “এথেকে বোঝা যায় আপনাদের মেটাবলিজম সিস্টেম ভাল কাজ করছে। সন্ধ্যায় এবং কাজের শেষে এক্সারসাইজ করার কারণে শারীরিক অবস্থা বেশ ভাল সকালে যারা ব্যায়াম করেন তাদের চেয়ে”।
পরামর্শ-
জন টাওয়ার UK Athletics এর একজন টেকনিকাল ডিরেক্টর। তিনি বলেন, টপ এথলেটসরা সাধারণত সকালে টেকনিকাল প্রশিক্ষণ নেন। কঠিন প্রশিক্ষণগুলো দেওয়া হয় বিকেল ৪টা থেকে ৬টার মধ্যে। এটা সবার জন্য ভাল ফল আনে, কার্যকর হয়।
তবে তিনি আরও বলেন-
“Some are morning people and others might have more energy in the evening. It’s a personal choice.”
আপনি যদি সিদ্ধান্ত নিতে চান আপনি আসলে কখন ব্যায়াম করবেন তাহলে আগে খেয়াল করুন আপনার লক্ষ্য কি। আপনার লক্ষ্য যদি হয় ব্লাড প্রেশার কমানো তাহলে ব্যায়াম করুন সকালে। আর শারীরিক ফিটনেস চাইলে সকল কাজ শেষে ব্যায়াম করাই যথাযথ।

ভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করতে ভুলবেন না ...

e-HostBD Hosting Service
eHostBD Hosting

মন্তব্য

GoodhealthTips4u শীর্ষক প্রকাশনায় মন্তব্য করুন জবাব বাতিল