Best Reseller Hosting Service in BD
মোট পোস্ট সংখ্যা: 2  »  মোট কমেন্টস: 0  
Facebook
Google Plus
Twitter
Linkedin

কেনো সবাই ব্লগিং থেকে দুরে সরে যাচ্ছে?

কেনো সবাই ব্লগিং থেকে লেফ্ট নিচ্ছে! আপনি এই সমস্যা গুলোর সম্মুখীন হওয়ার আগে সমাধান গুলো জেনে নিন!

ব্লগিং অনেক পপুলার! সবাই এর সাথে নিজেকে জড়িয়ে নিচ্ছে! অবশ্য অনলাইনে আয় করার জন্য এটা একটা বিশাল প্লাটফর্ম!

কিন্তু অনেক কারন আছে যার কারনে দিন দিন অনেকেই ব্লগিং থেকে লেফ্ট নিচ্ছে! যার মুল কারন হলো হতাশা আর অর্থের ঘাটতি!

e-HostBD Hosting Service

এরকমই কয়েকটা বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি যে কেনো সবাই ব্লগিং থেকে বের হয়ে যাচ্ছে!

আর চেষ্টা করবো সমস্যাগুলোর সমাধান দেওয়ার.

১. ফ্যামিলি প্রবলেমঃ-

এরকম ফ্যামিলি অনেক কম আছে যারা আপনাকে এটা বলেনি যে এইসমস্ত কাজগুলা স্প্যাম!

অর্থাৎ এসব অনলাইন থেকে কখনও ইনকাম করা যাবে নাহ! তার চেয়ে ভালো হবে ভালো করে লেখাপড়া করো এবং এতে করে অনেক বড় একজন মানুষ হবে!

এরকম নিয়ে প্রত্যেক পরিবারেই জগড়া লেগে থাকে! তাছাড়া ব্লগিং করতে হলে সারাক্ষণ স্মার্টফোন বা ল্যাপটপ নিয়ে পড়ে থাকতে হয়! যার কারনে অনেক বকাবকি খেতে হয়!

অনেকেই আছে যারা এইসব পরিবারের সমস্যার সাথে ফেস করে ব্লগিং থেকে লেফ্ট নিয়ে নেয়! যাহ অত্যন্ত হতাশাজনক!

আপনি যদি এই সমস্যার সম্মুখীন হন তাহলে একটা কথা শুনে নিন এরকম সিচুয়েশান এ কখনও হতাশ হবেন নাহ!

আপনার টার্গেট হলো ফ্যামিলি যে জিনিসটা স্প্যাম বলে চালিয়ে দিচ্ছে সেই জিনিসটাকে আর্শিবাদ মনে করে! কাজ চালিয়ে যাওয়া।

অবশ্যই আপনার সফলতা দেখে একদিন সবাই গর্ব করবে! মনে রাখবেন যেকোন ভালো কাজে কম বেশি বাদা আসবেই! আপনার উচিত হবে এই বিষয়গুলো মাথায় না নিয়ে নিজের কাজে মনোযোগ দেওয়া!

সফলতা আপনার একদিন এমনিতে আসবে! শুধু সময়ের অপেক্ষা!

২.ডলারের অভাব!

ব্লগিং বা যেকোন কিছুতেই একটা বড় প্রবলেম হলো ডলারের আসলে এসব করতে হলে অনেক ডলারের প্রয়োজন হয়!

অবিশ্বাস্য হলেও এটা সত্য যে অনেকে ব্লগিং ক্যারিয়ার শুরু করে লেখাপড়া থাকাকালীন সময়ে! সত্যি বলতে কি এই সময় নিজের কাছে ডলার তেমন একটা থাকে নাহ!

তাছাড়া ডোমেইন কিনার জন্য। ভালো মানের হোস্টিং কিনার জন্য এবং ভালো ব্লগার টেমপ্লেট কিনার জন্য অনেক ডলারের প্রয়োজন হয়!

তাছাড়া ব্লগিং ব্যবহারের জন্য সবচেয়ে বড় একটা হাতিয়ার হলো ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ কম্পিউটার!

অনেকেরই এটা থাকে নাহ! সবারই মোবাইল ফোন থাকে! আর মোবাইল ফোন দিয়ে লাইভ HTML সহ ব্লগ পুরোপুরি কাস্টমাইজ করা অনেক অসম্ভব!

অনেকে এই বিষয়গুলো ফ্যামিলির কাছে বললেও তারা এই বিষয়গুলোর ওপর তেমন একটা জোড় দেয় নাহ!

আর এসব সমস্যার সম্মুখীন হয়ে অনেকেই ব্লগিং থেকে লেফ্ট নিয়ে নিচ্ছে! আসলেই এটা খুবই সিরিয়াস একটা সমস্যা!

আমি আপনাকে বলে দিই একটা সিম্পট টিপস মোবাইল দিয়ে লাইভ HTML ইডিট করার! আপনি যখন মোবাইল দিয়ে এটা করবেন তখন আপনার ওয়েবসাইটটিকে ডেক্সটপ মোডে নিয়ে যাবেন!

তাহলে দেখবেন আগের থেকে ইডিট করাটা অনেক ফাস্ট হবে! অনেকাংশে এটা ডেস্কটপ কম্পিউটার এবং লেপটপ এর মতেই সেম স্পিডে হবে!

৩. হতাশা .

খোজ নিলে দেখা যাবে যে যে বা যারা ব্লগিং থেকে লেফ্ট নিচ্ছে বা নেওয়ার পরিকল্পনা করছে তাদের মধ্যে একটাই অবস্থা বিরাজমান থাকে তা হলো হতাশা!

ব্লগিং এ হতাশা জিনিসটা বলতে এভাবে বলতে হবে যে এখন পর্যন্ত অনেকগুলা পোষ্ট লিখে ফেললাম কিন্তু ব্লগে ভিসিটর একেবারেই আসছে!

সত্যি বলতে কি যদি আপনি অনেকগুলা পোষ্ট লিখেন কিন্তু কোন ভিসটর না আসে তাহলে মন খারাপ হওয়া অস্বাভাবিক কিছু নাহ!

তাছাড়া আরেকটি প্রবলেম হলে এডসেন্স এপরোভাল!

আসলেই সবাই ব্লগিং ক্যারিয়ার শুরু করে ডলায় আয় করার জন্য! আর ব্লগিং বা যেকোন ওয়েবসাইট থেকে ডলার ইনকাম করার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো এডসেন্স!

কিন্তু অনেকে দেখা যায় এখানে রিকুয়েস্ট দেয় তারপর বার বার ইগনোর করে দেয়! যার মুল কারন হলো আপনার কাজে ঘাটতি!

আর এইসব কারনে সবাই হতাশ হয়ে পড়ে ভাবে কখনও মনে হয় এটা সম্ভব নাহ আর তাই তারা ব্লগিং থেকে প্রতিনিয়ত লেফ্ট নিয়ে নিচ্ছে!

নিজের উপর ভরসা নেই.

তাছাড়া আরেকটি সমস্যা হলো নিজের উপর ভরসা তৈরী করতে না পারা! এটা সবচেয়ে জটিল একটা সমস্যা! অনেকেই আছে যারা নিজের উপর ভরসা করতে পারে নাহ!

বিষয়টা এরকম মনে হয় আমি পারবো নাহ! অথবা আমার ধারা এটা কখনও সম্ভব হবে নাহ! যার স্বীকার হয়ে সবাই ব্লগিং থেকে লেফ্ট নিয়ে নিচ্ছে!

আপনি যদি এরকম হন তাহলে একটা কথা শুনেন অবশ্যই নিজের প্রতি ভরসা রাখবেন! এটা মনে রাখবেন সবাই যখন পারছে তখন আপনিও পারবেন!

৪- টেকনিকাল প্রবলেম!

ব্লগিং থেকে যারা বা যে লেফ্ট নিচ্ছে বা নেওয়ার পরিকল্পনা করছে তারা আর যাই হোক নিচের প্রবলেমগুকো অবশ্যই ফেস করেছে!

অনেকের মনের মধ্যে এটা প্রতিনিয়ত চলতে থাকতে যে কোনটা ভালো ব্লগার নাকি ওয়ার্ডপ্রেস!

আমার মতে ব্লগারই ভালো কারন ব্লগারে কোন হোস্টিং কিনতে হয় নাহ! যাতে অনেক ডলার বেচে যাবে!

তাছাড়া কোন থিমও কিনতে হয়! এখানে ফ্রিতে অনেক টেমপ্লেট পাওয়া যায় যেগুলা প্রোফেশনাল লোকিং!

তাই আপনি যদি এই সমস্যার সম্মুখীন হন তাহলে অবশ্যই ভেবে নিবেন যে আপনি ঠিকই যায়গায় আছেন! ব্লগিং ভালো ওয়ার্ডপ্রেস থেকে! তবে এটা কিছু ক্ষেত্রে!

কোন টেমপ্লেট ইউজ করবো.-

এটা খুবই সিরিয়াস একটা সমস্যা কারন ব্লগারের অনেক টেমপ্লেট পাওয়া যায়! অনেকটা দেখতে অনেক প্রোফেশনাল লোকিং!

এখন ধরেন আপনি একটা টেমপ্লেট ব্যবহার করলেন কিন্তু আরেকটা ওয়েবসাইটে ভিসিট করে এর থেকে ভালো টেমপ্লেট দেখলেন! তখন এটা ব্যবহার করার কৌতুহল আসবেই এটাই সত্যি!

কিন্তু ব্যবহার করতে হলে আপনাকে অবশ্যই আরো অনেক সময় ব্যস করতে হবে এটা পুরোপুরি কাসটোমাইজ করতে!

তোহ আপনার উচিত যেই টেমপ্লেট ব্যবহার করেন নাহ কেনো একটাই ব্যবহার করেন! এতেই আপনার জন্য ভালো হবে!

আসলেই ভিসিটর ছাড়া যেকোন ওয়েবসাইটই একেবারেই অচল! আপনি অনেকগুলা পোস্ট লিখার পরে যদি পোস্টগুলা কেউ নাহ পরে তাহলে কেমন লাগবে!

যেইরকমই লাগুক অবশ্যই এটা আপনার মাথার মধ্যে ঘুরপাক খাবে যে কিভাবে ট্রাফিক আনা যায়! অনেকেই ধৈর্য সহকারে কাজ করার ফলে সফল হয়ে যায়!

আবার অনেকেই সফল না হয়ে ব্লগিং থেকে লেফ্ট নিচ্ছে!

এই পোস্টটিতে আমি সম্পুর্ণ দেখিয়েছি যে কিভাবে ওয়েবসাইটে ট্রাফিক আনতে হয় তাও আবার সবচেয়ে সহজ উপায়ে!

এই সেই সমস্যাগুলো যার কারনে সবাই ব্লগিং থেকে লেফ্ট নিচ্ছে এবং নেওয়ার পরিকল্পনা করছে!

আমি চেষ্টা করেছি পুরোটা বিষয় বুঝানোর এবং এই বিষয় গুলো যাতে আপনি ভালোভাবে সলভ করতে পারেন! এই টিপসগুলাও বুঝানোর চেষ্টা করেছি!..

আশা করি ভালো লেগেছে! ধন্যবাদ সাথে থাকার জন্য
ভিজিট করুন

ভিজিট করুন

ভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করতে ভুলবেন না ...
eHostBD Hosting

মন্তব্য করুন