Best Reseller Hosting Service in BD
মোট পোস্ট সংখ্যা: 93  »  মোট কমেন্টস: 5  
Facebook
Google Plus
Twitter
Linkedin

এন্ডয়েড এ Anyshare, Shareit, Zapya থেকে ৮ গুন দ্রুত ফাইল আদান প্রদান করুন। প্রায় 40 MBPS স্প্রিড

e-HostBD Hosting Service

আগের দিনের ব্লুটুথের মাধ্যমে ফাইল ট্রান্সফারের দিন বেশ আগেই ইতি ঘটেছে। স্মার্টফোন আসার পর থেকে নানা রকম এ্যাপ ডেভেলপারদের মাঝে প্রতিযোগিতা লেগেই আছে । যে কোন ডেভেলপার কার আগে যেতে পারে ।

আগে Bluetooth এর গতি ছিলো 100Kbps সর্বোচ্চ । আর স্মার্টফোনের নানা রকম এ্যাপ এর মাঝে Any Share এর গতি রেকর্ড করা হয়েছে সর্বোচ্চ 5 Mbps, আবার Shareit এর সর্বোচ্চ গতি 4.7 Mbps, Japya এর সর্বোচ্চ গতি রেকর্ড করা হয়েছে 5.3 Mbps । এটা আমার ২ টি ফোনের দ্বারা গতি পরীক্ষা করা । এই রেকর্ড কোন অফিসিয়াল সাইট থেকে নেওয়া হয় নি । এগুলো আমার ২ টি ফোনে পরীক্ষা করা । তবে আরেকটি কথা ফোনের মান এবং মেমোরির ট্রান্সফার রেট অনুযায়ী ফাইল লেন দেনের গতি কিছুটা কম বেশি হতে পারে । আজকের টিউনে চলে আসি এখন ।

আজকে আপনাদের উপহার দিবো আরেক রকেট গতির ফাইল ট্রান্সফার করার এন্ড্রয়েড এ্যাপ । যা দ্বারা আমার ফোনে এর সর্বোচ্চ গতি রেকর্ড করা হয়েছে 19 Mbps এবং তাদের অফিসিয়াল Read Me ফাইলে দেওয়া আছে 40 Mbps .. যা ভাবতেই অবাক লাগে । আমি একটি 49 MB এর HD ভিডিও গান সেন্ড করে নেওয়ার সময় স্কিনশট নেবার আগেই ট্রান্সফার শেষ । আর এর ব্যবহারবিধি আরো মজার এবং অসাধারণ । এতদিন তুমি কোথায় ছিলে বস ????

e-HostBD Hosting Service

এ্যাপটির নাম হচ্ছে SuperBeam Scanner . সাইজ মাত্র ১.৮ মেগাবাইট । ডাইরেক্ট ডাউনলোড লিংক দিয়ে দিচ্ছি নিচে । এর ব্যবহার বিধি আরো মজার এবং অন্যান্য এ্যাপ থেকে আলাদা । আমি ব্যবহারবিধি নিয়েই আগে বলছি ।

Sender : যিনি ফাইল সেন্ড করবেন এবং রিসিভ করবেন, তাদের দুজনের ফোনেই এ্যাপটি ইন্সটল দেওয়া থাকতে হবে । আপনি যে ফাইলটি পাঠাতে চান সেই ফাইলগুলো কিংবা ফোল্ডারগুলো সিলেক্ট করে নিন । এবার শেয়ার বাটনে চাপ দিন । এক্ষেত্রে আপনি File Manager, Gallery থেকেই সিলেক্ট করে শেয়ার বাটন চাপুন । শেয়ার করার জন্য অনেক মাধ্যম পাবেন । যেমন : Message, Bluetooth, Email ইত্যাদি । এখান থেকে আপনি SuperBeam সিলেক্ট করে দিন । নিচের স্কিনশট টি দেখুন ।

এবার সামান্য একটু Loading হবে । এরপর দেখা যাবে যে একটি QR কোড এসে হাজির । নিচের স্কিনশটের মতো ।

এ ক্ষেত্রে অটোমেটিক ভাবে আপনার Wi-fi চালু হয়ে যাবে । যদি আপানার ওয়াই ফাই চালু না হয় তবে তা ম্যানুয়ালী ভাবে চালু করে নিন । ফাইল সেন্ড কারীর কাজ শেষ । এবার রিসিভারের পালা ।

Receiver : এখন কাজ হচ্ছে যিনি ফাইলগুলো তার নিজের ফোনে নিবেন । আপনার ফোনের এ্যাপ গুলোর লিস্টে প্রবেশ করুন । এবার SuperBeam Scanner এ্যাপটি চালু করুন।

বি:দ্র: যদি আপনার ফোনের Wifi চালু না থাকে তবে চালু করে নিন ।

এ্যাপটি চালু হলে আপনার ফোনের ক্যামেরা দেখাবে । এবার যিনি ফাইল সেন্ড করেছেন তার ফোনে দেখানো QR কোডের উপর ক্যামেরাটি ধরুন ।

১ সেকেন্ডের মাধ্যেই কোডটি স্ক্যান হয়ে ফাইল আসা শুরু করবে আপনার ফোনে ।

আমার ফোনে এত গতিতে ফাইল এসেছে যে আমি স্কিনশট নেবার আগেই ট্রান্সফার শেষ ।

ডাউনলোড :  তবে ডাউনলোড করে নিন এই মজার এবং অসাধারণ ফাইল ট্রান্সফারের এ্যাপ । আপনাদের সুবিধার্থে আমি Play Store থেকে ডাউনলোড করে গুগল ড্রাইভে আপলোড করে দিয়েছি । সাইজ মাত্র 1.8 মেগাবাইট।

ডাউনলোড 

গুগল প্লে স্টোরে এর দেওয়া বর্ণনা :

সরাসরি ওয়াইফাই ব্যবহার করে দ্রুত ডাটা স্থানান্তর করা যায় ।NFC বা QR কোড স্ক্যান ব্যবহার করে দুটি ডিভাইসের মাঝে সংযোগ স্থাপন । ওয়েব ইন্টারফেসের মাধ্যমে আপনার বন্ধুদের সাথে এই SuperBeam এ্যাপটি শেয়ার করতে পারবেন । যে কোনো ধরনের ফাইল শেয়ার করা যাবে । একক বা একাধিক ফাইল ( ফটো, ভিডিও, জিপ ফাইল, APKs, ফোনবুক) শেয়ার করা যাবে ।সব ডাটা স্থানান্তর হিস্টোরী রয়েছে ।আধুনিক ভাবে এই এ্যাপের ডিজাইন করা হয়েছে । ইউজার ইন্টারফেস খুবই সহজ ও ফ্রেন্ডলী ।হাল্কা, অন্ধকার এবং অ্যামোলেড রঙ থিম ।সব ফাইল “/sdcard / SuperBeam” ডিরেক্টরির অধীন সংরক্ষিত হয় । চাইলে পরিবর্তন করা যাবে. ডুপ্লিকেট ফাইল সম্পর্কে চিন্তা করার কিছুই নেই,  SuperBeam এ স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফাইলের নামের অনুরূপ অন্যান্য নম্বর যোগ হবে ।SuperBeam ওয়াইফাই সরাসরি সমর্থন করে না এমন ডিভাইসের জন্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোড হটস্পট পরিবর্তন করে । যেমন : ওয়াইফাই সমর্থীত না হলে ডিভাইসের মধ্যে বিদ্যমান অন্যান্য নেটওয়ার্কে সংযোগ করে নেয় । যেমন : Bluetooth.






e-HostBD Hosting Service
eHostBD Hosting

মন্তব্য করুন